Kolkata

“রেখে কি লাভ? তুলে দিন শিক্ষা দপ্তর।” টেট মামলায় দিশেহারা রাজ্য সরকার।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে জটিলতা দীর্ঘদিনের।

শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও চাকরি না পেয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে চরম অসন্তুষ্ট চাকরি প্রার্থীরা। আন্দোলন-বিক্ষোভ কোনোকিছুতেই ফল না পেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন শিক্ষক পদপ্রার্থীরা। আদালতে শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত মামলার সংখ্যা এই মুহূর্তে নেহাত কম নয়। চাকরি প্রার্থীদের অভিযোগের পাহাড় জমেছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন সরকারের বিরুদ্ধে। এরকমই একটি টেট-এর নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় হাইকোর্টের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়লো রাজ্য সরকার।

২০১৪ সালের টেট পরীক্ষায় বসেছিলেন এরকম ১৮০ জন টেট উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থী টেট পাশ সার্টিফিকেট, ২০১৬-২০১৮ র দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার দাবিতে গত বছরের নভেম্বরে আদালতের দ্বারস্থ হন। সেই মামলার শুনানির সময় বিচারক রাজ্যের প্রতি চুড়ান্ত বিরক্ত হয়ে বলেন, “শিক্ষা সংক্রান্ত কোনো সমস্যাই যদি সমাধান করতে না পারে রাজ্য, যদি সব সমস্যা নিয়ে রাজ্যবাসীর ছুটতে হয় আদালতে তাহলে শিক্ষা দপ্তর রেখে লাভ কি? ওটা তুলে দিন।” বিচারপতির এই মন্তব্যের পর রাজ্যের তরফে নিজের স্বপক্ষে কিছু যুক্তি তুলে ধরা হয়। যদিও তার একটিও সেভাবে ধোপে টেকেনি। দুপক্ষের কথা শোনার পর ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের টেট পাশ সার্টিফিকেট প্রদান ও ১৬-১৮ ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা ও প্রথম বর্ষের রেজিস্ট্রেশনের সমস্যা সমাধানের উপর গুরুত্ব বাড়িয়ে রাজ্য শিক্ষা দফতরকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার কথা বলা হয় আদালতের তরফে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *