“বাড়াবাড়ি করলে চামড়া তুলে নেব”- বিরোধীদের হুমকি দিয়ে স্বমহিমায় কেষ্ট!




আবার গর্জে উথলেন বীরভূম জেলার তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। কেষ্টকে দেখা গেল তাঁর স্বমহিমায় ।
দলীয় অফিস ভাঙচুরের প্রতিবাদে আমোদপুরে মিছিল করে তৃণমূল। তাতে নেতৃত্ব দেন অনুব্রত মণ্ডল। আজ বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে পালটা আক্রমণ করলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। প্রসঙ্গত, সিউড়ির এক জনসভা থেকে দিলীপ ঘোষ বলেন হাতে বন্দুক তুলে নেওয়ার কথা।
আজ দিলীপ ঘোষের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, “এবার সহ্য করলাম। আর একবার সহ্য করব। তিনবারের মাথায় সহ্য করব না। তখন যেন দোষ দেবেন না। আপনারা দায়ি থাকবেন। যদি মনে করি বিজেপি-কে আটকে দেব, তো চৌকাঠ পেরোনোর ক্ষমতা হবে না। আর দিলীপবাবু বলছেন, চামড়া তুলে নুন মাখিয়ে দেব। বাড়াবাড়ি করলে আপনার চামড়া তুলতে এক সেকেন্ড সময় লাগবে না। সংযত কথা বলুন। রাজনীতির কথা বলুন। তৃণমূল দলটা কি মাওবাদী নাকি ? আমরা কি উগ্রপন্থী নাকি ? দল কৃষকের পাশে থাকবে, মানুষের পাশে থাকবে। অস্ত্র দেখাবেন না। সিপিআই(এম)-র অনেক অস্ত্র ছিল। সব ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছি। নতুন করে অস্ত্র দেখাবেন না। বড় বড় কথা বলতে ভালো লাগলে বাড়িতে বউ, ছেলের সঙ্গে বলুন না। ওরাও শুনবে।”

তিনি এখানেই থেমে যাননি। তিনি বিরোধীদের উদ্দেশে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “আমরা ইশারা করলে যেসব জায়গায় দু-একজন বিরোধী আছে তারা ঘরছাড়া হবে। এক সেকেন্ড লাগবে ঘরছাড়া করতে। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী সে শিক্ষা দেয় না। আমরা উন্নয়ন করতে এসেছি। আজ উন্নয়নের জোয়ার বয়ে যাচ্ছে। মমতা যা করছে তা নকল করছেন মোদিজি। দুটাকা কেজি চাল, নির্মল বাংলা সব মমতা আগে করছে। মমতা ব্যানার্জি উন্নয়নের কথা বলে। তাই, আমরা ঝামেলায় জড়াতে চাই না।”






Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*